বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নামে ভুয়া ‘স্বাস্থ্য উপদেশ’ !

সাম্প্রতিককালে, একটি ভুয়া নিউজ ইন্টারনেট এ ছড়িয়ে পড়েছে । আমরা জানি যে, মানুষ সঠিক নিউজ এবং ফ্যাক্ট চেকিং এর জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার উপর ভরসা করে থাকে । বিগত কয়েক বছর ধরে তারা এটিই করে আসছে। তবুও,  বিভ্রান্তিমূলক সংবাদ প্রচারের মাধ্যমে একটি অনলাইন পোর্টাল ৭ টি পয়েন্টস শেয়ার করেছে যার মাধ্যমে  আমাদের মস্তিস্ক এবং মস্তিষ্কের কোষগুলিকে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিষয়টির কোন  সত্যতা ছিল না। বরং এটির সোর্স মানুষের বিশ্বাসকে প্রভাবিত করেছে। অনলাইন পোর্টালটি দাবি করেছে যে এই তথ্যটি (ডাব্লুএইচও) দ্বারা ভেরিফাই করা হয়েছে।

 

এটি সম্পূর্ণই গুজব বা ফেইক নিউজ। 

ডাব্লুএইচও এই বিষয়বস্তু সম্পর্কে অবহিত হওয়ার পর  এটি সম্পূর্ণ অস্বীকার করে। কন্টেন্টটিতে  মস্তিষ্কের ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার অনুশীলনের একটি তালিকা অন্তর্ভুক্ত ছিল। উল্লিখিত কয়েকটি বিষয় হ’ল- পরিমিত পরিমাণে ঘুম না পাওয়া, ব্রেকফাস্ট  এড়ানো,অতিরিক্ত মাত্রায় চিনি খাওয়া  ইত্যাদি। এই পরামর্শগুলি বৈধ এবং যৌক্তিক হিসাবে মনে হতে পারে, তবে এগুলো  ডাব্লুএইচও দ্বারা প্রকাশ করা হয়নি। সুতরাং, তাদের ব্র্যান্ডের নেইম এবং লোগো ব্যবহার অনৈতিক ও  ভুল ছিল। তাই না জেনেই কখনো কোন নিউজ দেখে চূড়ান্ত সিধান্তে যাওয়া উচিত না। মেইন সোর্স চেক করে  দেখতে হবে যে এটি কতটা সত্য। ডাব্লুএইচও যদি এটি প্রকাশ করত তবে এটি তাদের ওয়েবসাইটে পাওয়া যেত।ওয়েবসাইটে না দেখেই অনেকে এই নিউজটি শেয়ার করা শুরু করেছিল। তাই এধরনের নিউজ শেয়ার করা বা বিশ্বাস করার আগে যাচাই করে নেওয়া জরুরি। 

Know More

হোমিওপ্যাথি ওষুধ ‘আর্সেনিকাম অ্যালবাম ৩০’ করোনাভাইরাস প্রতিরোধ করেহোমিওপ্যাথি ওষুধ ‘আর্সেনিকাম অ্যালবাম ৩০’ করোনাভাইরাস প্রতিরোধ করে

করোনা ভাইরাস সারা পৃথিবীতে মহামারি আকার ধারন করেছে এবং এখন পর্যন্ত এর কোন সুনির্দিষ্ট ঔষধ বা ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়নি। এজন্য করোনা নিয়ে নানান ধরনের জনমত সৃষ্টি  হয়েছে।এতে অনেক গুজবও ছড়াচ্ছে

আদা, কালোজিরা এবং গোলমরিচ করোনা ভাইরাসের ঔষধআদা, কালোজিরা এবং গোলমরিচ করোনা ভাইরাসের ঔষধ

করোনা ভাইরাস সারা পৃথিবীতে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে এবং এখন পর্যন্ত এর কোন ঔষধ বা ভ্যাকসিন আবিস্কার হয়নি। তাই করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক নিয়ে নানা ধরনের গুজব ছরিয়ে পড়েছে ।  অনেকেই দাবি

ফেক নিউজ ও গুজব শনাক্তকরণফেক নিউজ ও গুজব শনাক্তকরণ

আজকাল ইন্টারনেটে ফেক নিউজ ও গুজবের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। এসব ভুয়া সংবাদের ক্ষতি থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে নিম্নোক্ত পদক্ষেপ অনুসরণ করুন- অনলাইন সংবাদ এবং ওয়েবসাইটগুলি: ১।ডোমেন নাম পরীক্ষা