ধূমপান করোনা ভাইরাস রোধ করে?

সাম্প্রতিক কালে বিভিন্ন আনঅথরাইজড নিউজের হেড লাইনে এসেছে যে, “ ধূমপায়ীদের কোভিড-১৯ এর সংক্রমনের ঝুঁকি চার গুন কম” এবং “আরও প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে যে স্মোকিং করোনা ভাইরাস নিরাময়ে সক্ষম” এবং এসব নিউজ ইন্টারনেট এ ভাইরাল হয়ে যায় । 

এগুলো হল সম্পূর্ণই ভুল তথ্য যা বিভিন্ন ফেইক অনলাইন পোর্টাল থেকে পাবলিশ করা হয়েছে শুধুমাত্র নিজেদের ওয়েবসাইট এর ট্র্যাফিক বাড়ানোর জন্য। 

ধূমপান করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি বাড়ায় এবং গবেষণায় প্রমাণ পাওয়া গেছে যে, ধূমপায়ীদের করোনা ভাইরাসে গুরুতরভাবে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। এর কারণ হল, ধূমপায়ীরা তাদের চেহারা বা মুখে বেশি স্পর্শ করে এবং ধূমপান আপনার ফুসফুসকে ক্ষতিগ্রস্থ করে যা, কোভিড -১৯ সহ শ্বাসকষ্টজনিত অসুস্থতা থেকে গুরুতর অসুস্থতার ঝুঁকি বাড়িয়ে তোলে।২০২০ সালের ২২ এপ্রিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লুএইচও) দ্বারা আহ্বান করা জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের গবেষণার পর্যালোচনাতে দেখা গেছে যে, অধূমপায়ীদের তুলনায় ধূমপায়ীদের কোভিড -১৯-এ মারাত্মকভাবে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।একইভাবে, ডাব্লুএইচও বলেছে যে “কোভিড -১৯ একটি সংক্রামক রোগ যা প্রাথমিকভাবে ফুসফুসকে আক্রমণ করে। ধূমপান ফুসফুসের ফাংশনকে ক্ষতিগ্রস্থ করে তোলে যা শরীরকে করোনা ভাইরাস এবং অন্যান্য রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করা কঠিন করে তোলে। তামাক হ’ল কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ, ক্যান্সার, শ্বাস প্রশ্বাসের রোগ এবং ডায়াবেটিসের মতো অ-সংঘবদ্ধ রোগের জন্যও একটি বড় ঝুঁকির কারণ, যা কোভিড -১৯ দ্বারা আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অসুস্থ হওয়ার ঝুঁকিতে থাকা লোকদের উচ্চ ঝুঁকিতে ফেলেছে। বিভিন্ন গবেষণা পরামর্শ দেয় যে,” ধূমপায়ীদের মধ্যে গুরুতর রোগ এবং মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি থাকে ”। তাই, ধূমপানে উৎসাহিত না করে এর থেকে বিরত থাকা উচিত এবং এই পরিস্থিতিতে সুরক্ষিত থাকার জন্য এ বিষয়ে আরও সচেতনতা বাড়ানো উচিত।

Know More

ঈদের পর সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে সরকার!ঈদের পর সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে সরকার!

করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে মার্চ মাস থেকেই সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর সকল শিক্ষা কার্যক্রম অনলাইনের মাধ্যমে সংঘটিত হচ্ছে। গত

খাসির মাংসে করোনা ভাইরাস !খাসির মাংসে করোনা ভাইরাস !

করোনা ভাইরাস নিয়ে বিভিন্ন ধরনের নিউজ দেখা যায়, যার মধ্যে অনেক নিউজই ফেইক বা গুজব হয়ে থাকে। সাম্প্রতিক কালে বিভিন্ন গণমাধ্যম এবং অনলাইন পোর্টাল গুলোতে একটি নিউজ ছড়িয়ে  পরে যে,

স্যালাইন দিয়ে নিয়মিত নাক পরিস্কার করলে কি করোনা ভাইরাস সেরে যাবে?স্যালাইন দিয়ে নিয়মিত নাক পরিস্কার করলে কি করোনা ভাইরাস সেরে যাবে?

কোভিড-১৯ নিয়ে গুজব এবং ভুল ধারনাগুলো সাংবাদিকদের কাছে একটি মুল বস্তু হয়ে দাঁড়িয়েছে যা ইন্টারনেট এ ভয়াবহভাবে ছড়িয়ে পরছে। সাম্প্রতিককালে, একটি গুজব ছড়িয়েছে যে, স্যালাইন দিয়ে নিয়মিত নাক পরিস্কার করলে